মাদককে না বলুন!

0
32

মাহফুজুর রহমান

মাদকাসক্তি, যাকে বলা হয় সব অপরাধের মূল। একজন মানুষ যখন অপরাধ জগতে পা বাড়ায়, প্রথম সিঁড়িটা হলো, মাদকদ্রব্য। সিগারেট হলো মাদকাসক্তির মূল কারণ। একজন মানুষ প্রথমেই কিন্তু মাদক সেবন করে না। প্রথমে যেটা করে সেটা হলো সিগারেটের নেশা। এই নেশা থেকে আস্তে আস্তে মাদকের দিকে ঝুঁকে পড়ে। মাদক নেশায় আসক্ত বেশির ভাগই শুরু হয় বন্ধু বান্ধবের সাহচর্যে। কথায় বলে সৎ সঙ্গে স্বর্গবাস, অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ। আপনার সন্তানটি কোথায় যাচ্ছে কি করছে, সেটা কিন্তু একজন সচেতন অভিভাবকের দায়িত্ব। এই কাজটুকু যারা নিয়ম মতো করে থাকে তাদের সন্তানরা, কখনো মাদকের ধারে কাছে যাবার সম্ভাবনা খুবই কম। তাই অভিভাবককে সচেতন হতে হবে।

যে কোনো পরিবার এবং সমাজের জন্য মাদকাসক্তি ব্যক্তি হুমকিস্বরূপ। মাদকাসক্তি ব্যক্তি অন্যায় কাজ করতে দ্বিধাবোধ করে না। তারা সমাজের অনেক ক্ষতি করে থাকে। মাদকাসক্তি ব্যক্তি টাকা না পেলে ছিনতাই, ধর্ষণ, খুনসহ নানাবিধ অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। যা সমাজে অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধিসহ বিশৃঙ্খলা নষ্ট করে। মাদকাসক্তি ব্যক্তি পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্রের জন্য বোঝাস্বরূপ। মাদক পরিবার, সমাজকে ধ্বংস করে দেয়। তাই বলি, মাদকাসক্তি ব্যক্তিকে নয়, মাদককে ঘৃণা কর।